চুলের যত্নে লেবু

চুলের যত্নে লেবু

চুলের যত্নে আমরা বিভিন্ন ধরনের ক্যামিকাল জাতীয় জিনিস ব্যবহার করে থাকি! কিন্তু এসব ছাড়াও যে প্রাকৃতিক উপায়ে চুলকে সুন্দর করা যায় সে সম্পর্কে আমরা অনেকেই সঠিক জ্ঞান রাখিনা! চুলের যত্নের কথায় প্রথমেই আসে অত্যন্ত সহজলভ্য উপাদান লেবুর কথা! লেবুতে আছে ভিটামিন সি, সাইট্রিক এসিড, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম। অনেকেই একটা বদ্ধমূল ধারণা নিয়ে থাকেন যে লেবু চুলকে শুষ্ক করে তোলে যা একেবারেই ভুল ধারণা!

আসুন জেনে নেওয়া যাক চুলের যত্নে লেবুর ব্যবহারবিধি সম্পর্কেঃ

১. মেহেদী, ডিম এবং লেবুর রসঃ একটি পাত্রে ৫ চা চামচ মেহেদী গুঁড়োর সাথে একটি ডিম ভালো করে ফেটে নিন এবার অর্ধেক পরিমাণ লেবুর রস তাতে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টটি স্ক্যাল্পসহ পুরো চুলে সুন্দরমতো লাগিয়ে শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২. ক্যাস্টর অয়েল, অলিভ অয়েল এবং লেমন অ্যাসেনশিয়াল অয়েলঃ ১ চা চামচ ক্যাস্টর অয়েলের সাথে ২ চা চামচ অলিভ অয়েল এবং ৪/৫ ফোঁটা লেমন অ্যাসেনশিয়াল অয়েল একসাথে মিশিয়ে গরম করে নিন। এবার মিনিট ১৫ মতো পুরো স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন। ৩০ মিনিট পরে ঠান্ডা পানি দিয়ে শ্যাম্পু করে ফেলুন। এই প্যাক দুটি মাসে অন্তত ২/৩ বার ব্যবহার করলে চুলের বৃদ্ধি ত্বরান্বিত হবে।

চুলের যত্নে লেবুর হেয়ার প্যাক

৩. চা পাতা এবং লেবুর রসঃ একটি পাত্রে আধা কাপ পরিমাণ গরম পানিতে ২ চা চামচ চা পাতা ঘন করে জ্বাল দিয়ে লিকার তৈরি করুন। একটু ঠান্ডা হয়ে এলে তাতে ১ চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। কুসুম গরম থাকা অবস্থায় তুলা দিয়ে পুরো স্ক্যাল্পে লাগিয়ে ফেলুন। মিনিট বিশেক পরে ঠান্ডা পানি দিয়ে শ্যাম্পু করে ফেলুন।

৪. লেবুর রস এবং মেথিঃ একটি পাত্রে ২ চা চামচ মেথি সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সকালে ভিজিয়ে রাখা মেথি এবং লেবুর রস ভালো মতো ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি পুরো স্ক্যাল্পে ৩০ মিনিট মতো লাগিয়ে তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এই দুটি প্যাক মাসে দুবার ব্যবহারের ফলে খুশকি সমস্যা দূরীভূত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *